Cantonment College Cumilla

EIIN: 131957 | College Code: 7926|

cantcollegecumilla@gmail.com


  • 1
  • 2
  • 3
  • 4
  • 5
  • 6
  • 7
  • 8
  • 9
  • 10
IPSC Chef Patron

Chairman


Read More
IPSC Chef Patron

Chairman


Read More
IPSC Chef Patron

Principal


Read More
Home > About Us > History
Cantonment College History

Cantonment College History

কলেজ পরিচিতি

মোঃ কবীর উদ্দিন খান

অধ্যক্ষ, ক্যান্টনমেন্ট কলেজ, কুমিল্লা সেনানিবাস

 

কুমিল্লা সেনানিবাসের দক্ষিণ প্রান্তে বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমি (বার্ড) সংলগ্ন, শহরের কোলাহল ও দূষণমুক্ত পরিবেশে এবং সৌন্দর্যমন্ডিত প্রত্নতাত্তিক নিদর্শন ইটাখোলা মুড়ার কোল ঘেঁষে ক্যান্টনমেন্ট কলেজ অবস্থিত। কুমিল্লা সেনানিবাসের প্রাক্তন জিওসি মেজর জেনারেল জামিল ডি আহসান বিপি, পিএসসি, ৩৩ পদাতিক ডিভিশন ও এরিয়া কমান্ডার, কুমিল্লা এরিয়া ক্যান্টনমেন্ট কলেজ প্রতিষ্ঠার সর্বপ্রথম উদ্যোগ গ্রহণ করেন। সামরিক ভূমি ও ক্যান্টনমেন্ট অধিদপ্তর নিয়ন্ত্রিত এবং কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড পরিচালিত এ প্রতিষ্ঠানটি ২০০২-২০০৩ শিক্ষাবর্ষে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডে, কুমিল্লা হতে বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তির প্রাথমিক অনুমতি প্রাপ্ত হয়। ২০০৩-২০০৪ শিক্ষাবর্ষ থেকে একাদশ শ্রেণিতে উল্লিখিত তিনটি বিভাগে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি হয়। শ্রেণি কার্যক্রম শুরু করার জন্য ১১ জানুয়ারি ২০০৩ খ্রি.তৎকালীন জিওসি মেজর জেনারেল জামিল ডি আহসান বিপি, পিএসসি ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৩য় ও ৪র্থ তলার নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করেন। সামরিক ভূমি ও ক্যান্টনমেন্ট অধিদপ্তরের প্রাক্তন পরিচালক জনাব ফারুক আহমেদ ২৬ জুলাই ২০০৩ খ্রি. এ প্রতিষ্ঠানে ১৫ জন শিক্ষক নিয়োগ দান করেন। পরবর্তীতে ৩৩ পদাতিক ডিভিশনের তৎকালীন জিওসি মেজর জেনারেল মাসুদ উদ্দিন চৌধুরী, পিএসসি ২৮ সেপ্টেম্বর ২০০৩ খ্রি. কলেজের একাদশ শ্রেণির শ্রেণি কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে শুভ উদ্বোধন করেন। অতঃপর মেজর জেনারেল শেখ মোঃ মনিরুল ইসলাম, এনডিসি, পিএসসি, জিওসি ৩৩ পদাতিক ডিভিশন ও এরিয়া কমান্ডার, কুমিল্লা এরিয়া বিগত ১৫ নভেম্বর ২০১০ খ্রি. কলেজের নিজস্ব ছয় তলা ভবন নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। ২০১১ সালের ০৭ ডিসেম্বর তৎকালীন জিওসি, ৩৩ পদাতিক ডিভিশন ও এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল মোহাম্মদ কামরুজ্জামান কলেজের ছয় তলা বিশিষ্ট নতুন ভবন উদ্বোধন করেন। সামরিক ভূমি ও ক্যান্টনমেন্ট অধিদপ্তরের অনুমতি সাপেক্ষে ক্যান্টনমেন্ট কলেজে ২০১১-২০১২ শিক্ষাবর্ষ হতে স্নাতক (পাস) কোর্স চালু হয় এবং অধিদপ্তরের সিদ্ধান্ত মোতাবেক ২০১৫-২০১৬ শিক্ষাবর্ষ থেকে স্নাতক (পাস) কোর্সের  ভর্তি স্থগিত করা হয়।

 

বর্তমানে একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণিতে মোট ৮৩৫ জন শিক্ষার্থী অধ্যয়ন করছে এবং ৩০ জন শিক্ষক-শিক্ষিকা ও ১১ জন কর্মচারী কর্মরত আছেন। তথ্যপ্রযুক্তির এ যুগে  প্রতিটি বিষয়ে পাঠ পরিকল্পনা অনুযায়ী ডিজিটাল কন্টেন্টের মাধ্যমে শিক্ষকগণ পাঠদান করে থাকেন। সম্প্রতি আইসিটি বিষয়ের ব্যবহারিক ক্লাস সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে পরিচালনার জন্য একটি আধুনিক কম্পিউটার ল্যাব তৈরী করা হয়েছে।

 

বর্তমানে কলেজ পরিচালনা পর্ষদের সম্মানিত সভাপতি  ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ জামাল হোসেন, এনডিসি, এএফডব্লিউসি, পিএসসি, স্টেশন কমান্ডার, কুমিল্লা সেনানিবাস এর দিক নির্দেশনায় এবং কলেজ পরিচালনা পর্ষদের সহ-সভাপতি, ক্যান্টনমেন্ট এক্সিকিউটিভ অফিসার শামীমা খন্দকার (উপসচিব) এর পরিচালনায় কলেজের শিক্ষা কার্যক্রমসহ সার্বিক উন্নয়ন কর্মকাণ্ড দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলেছে।